পরামর্শ দিয়েছেন

আমাতুল্লাহ শারমিন
ডায়েটিশান ও নিউট্রিশন স্পেশালিস্ট

শেয়ার এবং প্রিন্ট করুন

পাঁচমিশালি খিচুড়ি

৭ মাস বয়স থেকে মায়ের বুকের দুধের পাশাপাশি শিশুকে খাওয়াতে হয় অন্যান্য খাবার। প্রাথমিক অবস্থায় তার খাবার হিসেবে বেছে নিতে পারেন আলু কিংবা পেঁপের মতো সহজে হজম হয়, এমন খাবার। পাশাপাশি, সবজি ও শাকের মাঝে যেকোনো একটি দিয়ে দেখতে হবে কোনটি বাচ্চার জন্য উপযুক্ত। সাধারনত আমাদের দেশে বাচ্চাদের সলিড ফুড শুরু করার বেলায় খিচুড়ি টাই বেশী জনপ্রিয়। সহজলভ্য ও পুষ্টিগুনের দিক থেকে খিচুড়ি খুবই ভালো সলিড ফুড । অনেকেই বাচ্চার জন্য খিচুড়ি রান্না করলে সব ধরনের ডাল মাছ মাংস ডিম বিভিন্ন ধরনের সব্জি মিশিয়ে খিচুড়ির পুষ্টিগুন বাড়াতে চান যেটা অবশ্যই পুষ্টিকর কিন্তু যখন ৭ মাস বয়সী বাচ্চার প্রথম সলিড শুরু করা হয় তখন একসাথে সব ধরনের ডাল বিভিন্ন ধরনের সব্জি মিশিয়ে রান্না করলে বাচ্চার হজমে সমস্যা  হয় গ্যাস হতে পারে। এই রেসিপিতে যে কোন এক ধরনের ডাল, সব্জি মিশাতে বলা আছে। তেল, মসলা, লবন ও  পরিমানমত মিশাতে বলা হয়েছে। ৭ মাস বয়সী বাচ্চার প্রথম সলিড শুরু করার বেলায় খিচুড়ি তে পরিমাণমত পোলাউ এর চাল মুগডাল, সব্জির বেলায় পেপে/কাচাকলা/ আলু, শিংমাছ অথবা মুরগীর মাংস দিয়ে পরিমাণমত অলিভ ওয়েল ও লবন মিশিয়ে রান্না করাটাই  ভাল  এতে খাবারটি সহযপাচ্য  ও পুষ্টিকর হয়।  সময়ের সাথে সাথে  শিশুর চাহিদা অনুযায়ী একটু একটু করে অন্যান্য ডাল,সবজি যোগ করে খাবারের পুষ্টিগুন আরো বাড়াতে হবে। এমনই চমৎকার একটি পাঁচমিশালি খিচুড়ির রেসিপি নিচে দেয়া হলো।

উপকরণ:

*চাল ১ টে চামচ

*মসুর /মুগ ডাল: ১/২ টে চামচ

*অলিভ অয়েল /সয়াবিন তেল ১/২ টে চামচ

*যে কোন এক ধরণের শাক /সবজি ১/২ টে চামচ

*ছোট মুরগির মাংস /কাঁটা ছাড়া যেকোনো মাছ ১/২ টে চামচ

*আদা-রসুন বাটা ১/৪ চা চামচ (আবশ্যিক নয়)

*লবণ খুব সামান্য

*পানি ৬০০ মিলি

প্রণালী:

*সবগুলো উপকরণ একসাথে নিয়ে অল্প কিছুক্ষণ ভেজে নিন।

*পানি দিয়ে সম্পূর্ণ সিদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন।

*ডাল ঘুটনি দিয়ে ভালো করে ঘুটে নামিয়ে নিন।

*খাওয়ানোর আগে খেয়াল রাখবেন যেন বেশি গরম না থাকে।

Leave a Reply